স্বামীর মৃত্যু শোকে কয়েক ঘণ্টা পর মারা গেলেন স্ত্রী

লালমনিহাটের পাটগ্রাম উপজেলার স্বামী হাসান আলী (৫৫) মৃত্যুর ৭ ঘণ্টা পরই স্বামীর শোকে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন স্ত্রী মঞ্জু আরা বেগম (৪৫) শনিবার (১৫জুন) ভোর ৪টায় পাটগ্রাম উপজেলার বাউড়া ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামে মৃত্যুবরণ করেন স্বামী হাসান আলী। এর পর স্বামীর মৃত্যুর শোকে সকাল ১১ টায়

মৃত্যুবরণ করেন স্ত্রী মঞ্জু আরা বেগম হাসান আলী ও মঞ্জু আরা বেগম দম্পতির তিন মেয়ে। দুই মেয়ের বিয়ে দিয়েছেন আর এর এক মেয়ে স্থানীয় সরকারি আলিমুদ্দিন ডিগ্রি কলেজে অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।
স্থানীয়রা বলেন, স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ভালোবাসার বন্ধন ছিল দৃঢ়। হাসান আলী একজন সুস্থ-সবল মুদি ব্যবসায়ী

ছিলেন। প্রতিদিনের ন্যায় বাজার থেকে রাতে বাড়ি ফিরেন তিনি। এর পর ভোর ৪টার দিকে ঝড়ে পড়া আম খেয়ে কিছুক্ষণ পর স্ত্রীর সামনেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে হাসান আলী। স্বামীর শোকে মঞ্জু আরা বেগম ভোর থেকে কান্নায় ভেঙে পড়েন এরপর সকাল ১১ টায় অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে স্থানীয় বাউড়া বাজারে প্রাথমিক চিকিৎসা

দেওয়ার পর হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। স্বামী স্ত্রীর মৃত্যুতে তাদের বাড়িতে শত শত মানুষ ভিড় জমাচ্ছেন স্থানীয় সাহেব হোসেন বলেন, হাসান আলী একজন সাদামনের মানুষ ছিলেন। আমরা জীবনে এমন মৃত্যু দেখি নাই। স্বামীর মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা পর স্ত্রীর মৃত্যু। তাদের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে
স্থানীয় রতন ইসলাম বলেন, স্বামী স্ত্রীর এমন মৃত্যু

আমরা কোনোদিন দেখিনি শুধু গল্প শুনতাম আজ তাদের মৃত্যু বাস্তবে দেখলাম। শনিবার বিকেল ৫টায় উভয়ের জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে পাশাপাশি স্বামী-স্ত্রী দুইজন কে শায়িত করা হয়েছে পাটগ্রাম উপজেলার বাউরা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রাবিউল ইসলাম মিরন বলেন, স্বামী স্ত্রীর মৃত্যু খবর পেয়ে তাদের বাড়িতে গিয়ে পরিবারকে শান্তনা দিয়েছি। পাশাপাশি সকলে শোকাহত